ফরেক্স ট্রেড করার জন্য আদর্শ টাইমফ্রেম

0
437
Best Time Frame for Trading
Best Time Frame for Trading
- ফান্ড ডিপোজিট করুন নেটেলার এর মাধ্যমে -

ট্রেড করার জন্য Best Time Frame কোনটি?

আসলে, এটা সম্পূর্ণভাবে নির্ভর করে আপনার ট্রেডিং কৌশল আপনি কোন টাইমফ্রেমে ট্রেড করতে পছন্দ করেন তার উপর।

- স্পন্সর পোস্ট -

যদি আপনি ধীরগতির ট্রেড করতে পছন্দ করেন অর্থাৎ খুব তাড়াহুড়ো করে ট্রেডে এন্ট্রি নেন না তাহলে আপনার জন্য আদর্শ হচ্ছে, বড় সময়ের ট্রেডিং টাইমফ্রেম। যেমন, 4-hour,daily কিংবা weekly ।

অন্যদিকে, আপনি যদি খুব দ্রুত ট্রেড করতে পছন্দ করেন অর্থাৎ তাড়াহুড়ো পছন্দ করেন তাহলে আপনি জন্য হচ্ছে ছোট সময়ের টাইমফ্রেম। যেমন 5-minute এবং 15-minute এর চার্ট।

নিচে একটি টেবিলের মাধ্যমে আমরা টাইমফ্রেম সম্পর্কে কিছু বেসিক ধারণা প্রদানের চেষ্টা করেছি। এখানে বিভিন্ন টাইমফ্রেমের মধ্যকার পার্থক্য দেয়া আছে।

টাইমফ্রেম বর্ণনা সুবিধা অসুবিধা
লংটার্ম
Long Term
Long-term ট্রেডাররা সচারচর daily এবং weekly চার্ট অনুসরন করে ট্রেড করে থাকেন।
লংটার্ম ট্রেড করার জন্য ট্রেডাররা এই Weekly চার্ট দেখে থাকেন এবং সে অনুসারে Daily চার্টে এন্ট্রি গ্রহন করেন। পজিশন সাধারনত সপ্তাহ কিংবা মাসিক ভিত্তিতে ধরে রাখেন।
প্রতিদিন মার্কেট পর্যবেক্ষণ করার কোনও প্রয়োজন হয় না।

ট্রেডে কম এন্ট্রি নেন অর্থাৎ কম স্প্রেড চার্জ হয় যা ট্রেডারের জন্য সুবিধা।

মার্কেট এনালাইসিস এর জন্য প্রচুর পরিমাণ সময় পান। যতো ভালো এনালাইসিস ততো ভালো ট্রেডে এন্ট্রি।

প্রতিটি ট্রেড অনেক বড় সময়ের জন্য হয় বলে, মাঝে মাঝে বহুদিন পজিশন ধরে রাখতে হয়। এক্ষেত্রে ধৈর্য অনেক বেশী দরকার।
এই ধরনের ট্রেডে ব্যালেন্স অনেক বেশী পরিমাণ প্রয়োজন হয়। কারণ আপনাকে অনেকদিন ধরে এন্ট্রি পজিশন টিকিয়ে রাখতে হবে।
শর্টটার্ম
(SWING)
শর্ট-টার্ম ট্রেডাররা সচারচর hourly টাইমফ্রেমে এন্ট্রি নেন এবং পজিশন hours থেকে week পর্যন্ত ধরে রাখেন। ট্রেড করার জন্য অনেক বেশী সুযোগ পাওয়া যায়।
ট্রেডের জন্য বেশী পরিমাণ এন্ট্রি পাওয়া যায় বলে প্রফিটও অনেক বেশী করা যায়।
ট্রেডের খরচ অনেক বেশী হয় তার কারণ একাধিক ট্রেডে স্প্রেডও একাধিকবার দিতে হয়।
হঠাৎ হয়ে যাওয়া কোনও বাজে মুভমেন্ট খুব বেশী খারাপ হতে পারে। যেমন ২০১৬ সালের GBP পেয়ারের Flash Crash
INTRADAY Intraday ট্রেডাররা minute চার্টে যেমন 1-minute অথবা 15-minute এন্ট্রি নিয়ে থাকেন।
প্রতিটি ট্রেড শুধুমাত্র ওইদিনের জন্যই হয়ে থাকে। মার্কেট ক্লোজ হবার সাথেই ট্রেডাররা, ট্রেড ক্লোজ করে দেন।
ট্রেড করার জন্য অনেক বেশী সুযোগ পাওয়া যায়।
হঠাৎ হয়ে যাওয়া কোনও বাজে মুভমেন্ট থেকে বেঁচে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশী থাকে। কারণ আপনি পজিশন ধরে রাখবেন না।
ট্রেডের খরচ অনেক বেশী হয় তার কারণ একাধিক ট্রেডে স্প্রেডও একাধিকবার দিতে হয়।
প্রচুর মানসিক প্রেসার থাকে কারণ সঠিক মার্কেট একশন বুঝতে পারা অনেক কঠিন হয়ে যায়।প্রফিট এর সীমাবদ্ধতা অনেক বেশী থাকে কারণ আপনি দিনের ট্রেড দিনেই ক্লোজ করবেন।

এর সাথে আপনাকে ট্রেডিং ব্যালেন্স এর পরিমাণও মাথায় রাখতে হবে। শর্ট-টাইম ট্রেডে কম ব্যালেন্স নিয়েও মার্জিন ভালো করে ব্যবহার করে Stop Loss দিয়ে ট্রেডে এন্ট্রি নেয়া যায়।

লং-টাইমফ্রেমে ট্রেড করার জন্য, আপনার যেহেতু ব্যালেন্স অনেক বড় পরিমাণ থাকবে সুতরাং আপনার মার্জিন কল নিয়ে চিন্তা করত হবে না। আপনি বেশী গ্যাপ অনুযায়ী ট্রেডের পজিশন রাখতে পারবেন।

মনে রাখতে হবে, আপনি যেই টাইমফ্রেমেই ট্রেড করেন না কেন, সেটা অবশ্যই আপনার ট্রেডিং কৌশলের সাথে মানানসই হতে হবে। এটা হচ্ছে সবচেয়ে বড় কথা। এর জন্য আমরা সব ট্রেডারকে পরামর্শ প্রদান করি যাতে করে, বেশী পরিমাণ প্র্যাকটিস ট্রেড করার মাধ্যমে আপনি আপনার জন্য একটি পারফেক্ট টাইমফ্রেম খুঁজে নিতে পারেন।

আপনি যখন আপনার জন্য Best Time Frame বের করতে সক্ষম হবেন তখনই আমরা আপনাকে শেখাবো কিভাবে একাধিক টাইমফ্রেম ব্যবহার করে মার্কেট এনালাইসিস করা যায়!

 

আশা করি এই আর্টিকেলটি আপনার ভালো লেগেছে। ফরেক্স মার্কেট সম্পর্কিত যেকোনো তথ্য আমাদের Facebook, Google Plus, Twitter, YouTube এবং Forum থেকে জানুন। গুরুত্বপূর্ণ সব আপডেট পেতে সাবস্ক্রাইব করুন।

 

- নির্ভরযোগ্য এবং বিশ্বস্ত ব্রোকার 
Instaforex Broker Exness Broker IQ Option Broker WesternFX Broker FBS Broker
Skrill Neteller ETORO Broker ICMarkets Broker Hotforex Broker

কমেন্ট/প্রশ্ন করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here