EURUSD টেকনিক্যাল এনালাইসিস – September 09, 2020

0
100
EURUSD Technical Analysis For September 09, 2020
- ফ্রি কপি ট্রেডিং -

FXBangladesh.com – বড় সকল টাইমফ্রেমে কারেন্সি পেয়ারটি আপট্রেন্ড এর মধ্যেই রয়েছে তবুও আমরা কিছু এন্ট্রি পজিশন চার্টে দেখে নিতে পারি। চলুন প্রথমে এখনকার চার্ট দেখে নেয়া যাক-

EURUSD Technical Analysis For September 09, 2020 - Ascending Channel Found

 

এটি EUR/USD কারেন্সি পেয়ার এর H4 টাইমফ্রেম এর একটি চার্ট। চার্টে এর দিকে যদি ভালো করে লক্ষ্য করি তাহলে দেখতে পাবো, বিগত বেশকিছু দিন ধরেই কারেন্সি পেয়ারটি একটি নির্দিষ্ট রেঞ্জ এর মধ্যেই অবস্থান করছিল। যেখানে আমরা একটি ঊর্ধ্বমুখী চ্যানেল এর অবস্থান লক্ষ্য করতে পারছে। আগস্ট এর ২৮ তারিখ এর এনালাইসিসে বলেছিলাম, যদি প্রাইস কোনওভাবে 1.1850 এর উপরে অবস্থান করতে সক্ষম হয় তাহলে বড় ধরনের আপ্ট্রেন্ড দেয়ার সম্ভাবনা থাকবে।

সেই মোতাবেক প্রাইস ব্রেকআউট পরে প্রায় ১৫০ পিপ্স এর শক্তিশালী আপট্রেন্ড প্রদান করে যেখানে প্রাইস এর সর্বাধিক প্রাইস লেভেল ছিল 1.2011

এরপর, সেপ্টেম্বর এর ১ তারিখ এর এনালাইসিসে বলেছিলাম, প্রাইস একটি চ্যানেল এর মধ্যে অবস্থান করছিল যেখানে চ্যানেল এর উপরের লেভেল অর্থাৎ রেসিস্টেন্স লেভেল থাকে বাউন্স করার সমুহ সম্ভাবনাও রয়েছে। হয়েছেও তাই।

চ্যানেল এর ট্রেডিং অনুসারে আমরা জানি, প্রাইস যখন এই রেঞ্জ এর উপরের লেভেলে থাকবে তখন বাউন্স হিসাবে Sell এন্ত্রি গ্রহন করা যেতে পারে অন্যদিকে, প্রাইস যখন রেঞ্জ এর নিচের লেভেলে থাকবে তখন বাউন্স হিসাবে সম্ভাব্য BUY এন্ট্রি গ্রহন করা যেতে পারে।

প্রাইস এনালাইসিস মোতাবেক, চ্যানেল এর উপরের লেভেল থেকে বাউন্স করে নিচের চ্যানেল এর লেভেল অর্থাৎ সাপোর্ট লেভেলে আসতে সক্ষম হয়েছে। যেখানে, প্রত্যাশিত প্রফিট টার্গেট ছিল প্রায় ২০০ পিপ্স এর মতন।

সেই অনুসারে প্রাইস প্রায় ২০০ পিপ্স ইতিমধ্যেই ডাউন। অর্থাৎ বেশ ভালো কিছু পিপ্স এর প্রফিট আমরা করতে পেরেছি। যাদের সেল এন্ট্রি ছিল সেটি ক্লোজ করে ফেলার পরামর্শ প্রদান করছি এবং নতুন ট্রেন্ড তৈরি হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করা উচিৎ।

এখনকার প্রাইস প্যাটার্ন অনুসারে, এখনই নতুন করে এন্ট্রি নেয়া থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দিচ্ছি এবং যদি প্রাইস কোনওভাবে এই চ্যানেল রেঞ্জ ব্রেকআউট করতে সক্ষম হয় তাহলে নতুন করে Sell এন্ট্রি গ্রহন করা যেতে পারে যেখানে পসিবল টার্গেট লেভেল হতে পারে 1.1700 এর কাছাকাছি। প্রাইস ইতিমধ্যেই বেশকয়েকবার রেঞ্জটি ব্রেক করার চেষ্টা করলেও সফল হতে পারেনি যেটি আমাদের মনিয়ে করিয়ে দেয়, বিদ্যমান রেঞ্জ এর শক্তি সম্পর্কে।

এছাড়াও চার্টে আমরা একটি শর্টটার্ম ট্রেন্ডলাইন এর উপস্থিতি দেখতে পাচ্ছি। যদি প্রাইস কোনওভাবে এই ট্রেন্ডলাইন ব্রেক করতে পারে তাহলে ধরে নিতে পারি প্রাইস পুনরায় রেঞ্জ এর রেসিস্টেন্স লেভেল এর দিকে উঠে আসতে পারে।

ট্রেডিং পরামর্শ –

  • H1 টাইমফ্রেম এর জন্য এনালাইসিসটি প্রদান করা হয়েছে।
  • নতুন করে কোনও BUY/SELL এন্ট্রি না নেয়াই ভালো।
  • যদি প্রাইস 1.1810 এর উপরে ক্যান্ডেল ক্লোজ করতে সক্ষম হয় তাহলে নতুন করে BUY এন্ট্রি গ্রহন করা যেতে পারে।
  • বাই এন্ট্রির পসিবল টার্গেট হতে পারে 1.2000 এর কাছাকাছি।

Covid19 সতর্কতা 

ইতিমধ্যেই বিশ্বের প্রায় ১৯৬টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে মহামারি এই ভাইরাস যার কারনে বড় বড় সকল দেশের স্টকমার্কেট এর সুচক কমছে ক্রমান্বয়ে। এমতাবস্থায়, ট্রেডিং এর সময় এবং এন্ট্রি পজিশন কম নেয়ার জন্য অনুরধ করছি আমরা এবং বিদ্যমান কোনও এন্ট্রি স্টপলস ছাড়া না রাখার পরামর্শ প্রদান করছি। কেননা, বিদ্যমান এই পরিস্থিতিতে আমরা যেকোনো ধরনের স্লিপেজ, প্রাইস গ্যাপ, কিংবা বড় ধরনের অস্বাভাবিক মুভমেন্টও দেখতে পারি। সুতরাং, নিজে সতর্ক থাকুন এবং ট্রেডিং এর জন্য পর্যাপ্ত মার্জিন এর ব্যবস্থা করে রাখুন।

ফরেক্স ট্রেডিং একটি ঝুঁকিপূর্ণ বিনিয়োগ মাধ্যম। প্রকাশিত এই এনালাইসিস শুধুমাত্র আপনাকে মার্কেটের বিদ্যমান একটি ধারণা প্রদানের জন্য দেয়া হয়েছে। শুধুমাত্র, এই এনালাইসিস এর উপর ভিত্তি করেই কোনও ধরনের ট্রেডে এন্ট্রি গ্রহন করা থেকে বিরত থাকুন। আপনার কোনও ধরনের লস/ক্ষতির দায়ভার FX Bangladesh গ্রহন করবে না। বিস্তারিত জানার জন্য অনুগ্রহ করে আমাদের Risk Warning আর্টিকেলটি পড়ে নিন।

আশা করি আর্টিকেলটি আপনার ভালো লেগেছে। এই আর্টিকেল সম্পর্কিত বিশেষ কোনও প্রশ্ন থাকলে আমাদের জানতে পারেন কিংবা নিচে কমেন্ট করতে পারেন। প্রতিদিনের আপডেট ইমেইল এর মাধ্যমে গ্রহনের জন্য, নিউজলেটার সাবস্ক্রাইব করে নিতে পারেন। এছারাও যুক্ত হতে পারেন আমাদের ফেইসবুক এবং কমিউনিটি পোর্টালে। সেই সাথে রয়েছে আমাদের ভিডিও ট্রেনিং লাইব্রেরী। এছারাও ট্রেড শিখার জন্য জন্য আমাদের রয়েছে অনলাইন ট্রেনিং পোর্টাল।

কমেন্ট/প্রশ্ন করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here