মার্কেট মেইক ব্রোকারে কেন ট্রেড করবেন?

0
550
Market Making Broker
Market Making Broker
- ফান্ড ডিপোজিট করুন নেটেলার এর মাধ্যমে -

মার্কেট মেইক সম্পর্কে আমাদের সর্বশেষ দুইটি আর্টিকেল প্রকাশিত হবার পড়ে আমরা এই পর্যন্ত ব্যাপক পরিমাণ সাড়া পেয়েছি আপনাদের কাছ থেকে। বেশীরভাগ পাঠক এরই কিছু কমন প্রশ্ন ছিল, ব্রোকার মার্কেট মেইক যদি করে তাহলে সেই ব্রোকারে আমরা ট্রেড করবো কেন? আবার, সকল ডিলিং ডেস্ক এর ব্রোকারই যদি মার্কেট মেইক করে থাকে তাহলে মানুষ কেনইবা তাদের কাছে থেকে ট্রেড করে থাকে? আমরাই বা কেন তাদের সাথে ট্রেড করবো? কিছু মার্কেট মেইক ব্রোকারের নাম বলেন, ওইখানে আর ট্রেড করবো না! ইত্যাদি, ইত্যাদি এবং ইত্যাদি। আজকের আর্টিকেলে। আমরা মার্কেট মেইক ব্রোকারের কিছু সুবিধা এবং অসুবিধা নিইয়ে আপনাদের সাথে আলোচনা করবো। আশা করি সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়বেন।

সুবিধা

আমরা প্রথমেই বলেছিলাম, মার্কেট মেইক করা ব্রোকারের একটি সাধারণ বৈশিষ্ট্য। এটি খারাপ কিছু নয়। সত্যি কথা বলতে কি, আমাদের মধ্যে যাদের ফরেক্স ট্রেডিং এর ব্যালেন্স কম থাকে তাদের জন্য ডিলিং ডেস্ক এর ব্রোকার কিংবা মার্কেট মেইকার ব্রোকার আদর্শ। প্রশ্ন হচ্ছে কেন? চলুন এই ধরনের ব্রোকারের কিছু সুবিধার সাথে পরিচিত হই।

- স্পন্সর পোস্ট -
  • ডিপোজিট এর পরিমাণ – ডিলিং ডেস্ক ব্রোকারের ডিপোজিট এমাউন্ট এর পরিমাণ অনেক কম থাকে। অর্থাৎ, এই ধরনের ব্রোকারে আপনি চাইলে যেকোনো ধরনের এমাউন্ট ডিপোজিট করে ট্রেড শুরু করতে পারেন। তবে এই এমাউন্ট ব্রোকার ভেধে ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। অনেক আগেই আমরা এই সম্পর্কে আপনাদের সাথে আলোচনা করেছি। এখন শুধু এতটুকু বলে রাখি, আমরা নিজেরাও এখন পর্যন্ত বিভিন্ন ধরনের ডিলিং ডেস্ক ব্রোকারে ট্রেড করে থাকি সুতরাং, আপনিও নির্ভয়ে এই ধরনের Market Making Broker এ ট্রেড করতে পারেন।
  • বিভিন্ন ধরনের বোনাস অফার – সত্যি কথা বলতে, বাংলাদেশী ট্রেডারদের জন্য এই ধরনের ব্রোকার আদর্শ। এরা বিভিন্ন ধরনের ডিপোজিট কিংবা নো ডিপোজিট বোনাস প্রদান করে থাকে যা ব্যবহার করে ট্রেডাররা চাইলেই তাদের প্রাথমিক বিনিয়োগের পরিমাণ বাড়িয়ে নিতে পারেন। এদের মধ্যে আবার কিছু বোনাস আছে যাকে বলা হয় ট্রেডেবল বোনাস। অর্থাৎ, এই ধরনের বোনাস এমাউন্ট আপনি চাইলে শর্ত সাপেক্ষে উত্তোলনও করতে পারবেন।
  • ট্রেডের বাধ্যবাধকতা – কিছু ব্রোকারে কিছু ট্রেডিং এর এমাউন্ট এর উপর বাধ্যবাধকতা থেকে থাকে। অর্থাৎ, আপনি সারাদিনে ৫০ কিংবা ১০০ এন্ট্রির বেশী গ্রহন করতে পারবেন না কিন্তু ডিলিং ডেস্ক এর ব্রোকারে এই ধরনের কোনও শর্ত থাকে না। আপনি চাইলে আপনার মতন করে সারাদিন যেকোনো পরিমাণ ট্রেডে এন্ট্রি গ্রহন করতে পারেন। তবে অবশ্যই, ব্রোকারের ভিন্নতা অনুযায়ী এই পরিমাণও ভিন্ন রকমের হয়ে থাকে।
  • লিভারেজ এর পরিমাণ – লিভারেজ ফরেক্স ট্রেডিং এর একটি অত্যাবশ্যক বিষয়। ডিলিং ডেস্ক কিংবা Market Making Broker এ এই লিভারেজ এর পরিমাণ এর তেমন কোনও বাধ্যবাধকতা থাকে না। আপনি চাইলে এই ব্রোকারের সর্বোচ্চ লিভারেজে ট্রেড করতে পারেন। যারা মার্জিন ভিত্তিক ট্রেড করে থাকেন তাদের জন্য এই সুযোগটি অসাধারণ। তবে একটি বিষয় বলে রাখা ভালো, মার্জিন ট্রেডিং এ ঝুঁকি অনেক বেশী থাকে সুতরাং, আগে ভালো করে এই বিষয়টি সম্পর্কে জেনে নিবেন।
  • চার্জ – ডিলিং ডেস্ক এর কোনও ব্রোকারে স্প্রেড ব্যতীত আর অন্য কোনও ধরনের কোনও চার্জ কিংবা অন্য আর কোনও ধরনের ফি প্রদান করতে হয় না। ট্রেডে অতিরিক্ত যেকোনো ধরনের চার্জ, ট্রেডারের জন্য অবশ্যই লস এর কারণ। এধরনের ব্রোকার মূলত Fixed Spread এবং Floating Spread এই দুই ধরনের স্প্রেড দেখা যায়। আর একটি বিষয় বলে রাখা ভালো, এই ধরনের ব্রোকারগুলো তাদের ক্লায়েন্টদের সোয়াপ ফ্রি একাউন্ট খোলার সুবিধা প্রদান করে থাকে যার মাধ্যমে আপনি স্প্রেড ব্যতীত যেকোনো ধরনের অতিরিক্ত চার্জ থেকে মুক্তি পাবেন।

অসুবিধা

সব বিষয় এরই কিছু না কিছু অসুবিধা থাকেই। ডিলিং ডেস্ক কিংবা Marker Making Broker এরও কিছু বিশেষ অসুবিধা থাকে যার ফলে অনেক ট্রেডারই এই ধরনের ব্রোকারকে পছন্দ করেন না। প্রথমেই বলে রাখি, আলোচ্য বিষয়গুলো এক এক ট্রেডারের কাছে এক এক রকমের হয়ে থাকে তাই সেখান থেকে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোই আলোচনা করবো আপনাদের সাথে।

  • উত্তোলনের সময় – সব ট্রেডারই চায়, নিজেদের বিনিয়োগকৃত ফান্ড উত্তোলন করতে যাতে কোনও ধরনের সময় না লাগে। আমরাও সেটাই চাই কিন্তু সমস্যা হচ্ছে এই ধরনের ব্রোকারগুলো ফান্ড ডিপোজিট প্রক্রিয়া স্বয়ংক্রিয়ভাবে হলেও এদের ফান্ড উত্তোলন করতে একটু সময় লেগে যায়। অনেকের কাছেই এই বিষয়টি বিরক্তিকর।
  • ট্রেডের বাধ্যবাধকতা – কিছু কিছু ব্রোকারে এন্ট্রি সময়ের কিছু শর্ত থাকে। যেমন অনেক ব্রোকার আছে, যেখানে আপনি নতুন করে নেয়া কোনও এন্ট্রির প্রফিট ৫ মিনিট কিংবা ২ মিনিট এর আগে ক্লোজ করতে পারবেন না। বিষয়টি যে আবার সকল ধরনের ডিলিং ডেস্ক ব্রোকারেই থাকে তেমন নয়। উদাহরণ হিসাবে যদি বলি, ধরুন আপনি EUR/USD কারেন্সি পেয়ারে একটি এন্ট্রি নিলে ১২ঃ০০ সময় এখন আগামী দুই মিনিট এর মধ্যে যদি আপনি সেই এন্ট্রি থেকে $২০০ সমপরিমাণ প্রফিটও দেখেন তাহলেও নিতে পারবেন না। বিষয়টি অনেক ট্রেডারের কাছে বিরক্তিকর।
  • Re-quote জনিত সমস্যা –  যখন মার্কেটে প্রাইস মুভমেন্ট অনেক বেশী থাকে তখন এন্ট্রি নিতে অনেক বেশী পরিমাণ সমস্যা লক্ষ্য করা যায়। প্রায়ই দেখা যায়, “Price has been Changed, Please Try Again” এই ধরনের কিছু নোটিশ চলে আসে। যার ফলে আমারা চাইলেও আমাদের কাঙ্ক্ষিত স্থানে এন্ট্রি গ্রহন করতে পারি না। ট্রেডার হিসাবে আমাদের জন্য এটি লস।

পরামর্শ

ব্রোকার হিসাবে ডিলিং ডেস্ক ব্রোকার একদম খারাপ না। যারা নতুন হিসাবে ফরেক্স ট্রেড শুরু করতে চান তাদের জন্য আমাদের পরামর্শ হচ্ছে এই Market Making Broker । কারণ এটি আপনাকে বিনিয়োগ এর উপর বোনাস প্রদান করে থাকে। যাদের বিনিয়োগ এর পরিমাণ কম থাকে তারা চাইলেই এই বোনাস এমাউন্ট গ্রহন করে সাময়িকভাবে নিজেদের ব্যালেন্সকে বাড়িয়ে নিতে পারেন। আপনি যদি একজন স্কাল্পার না হন তাহলে এই ডিলিং ডেস্ক ব্রোকারে চাইলে ট্রেড করে দেখতে পারেন। আমরা এখনও এই ধরনের ব্রোকারে ট্রেড করে থাকি। সুতরাং, আপনিও চাইলে নির্ভয়ে এখানে ট্রেড করতে পারেন।

 

আশা করি এই আর্টিকেলটি আপনার ভালো লেগেছে।
সম্পূর্ণ নতুন করে তৈরি আমাদের অনলাইন ট্রেনিং প্রোগ্রামে এখনই রেজিস্ট্রেশন করুন। ফরেক্স মার্কেট সম্পর্কিত যেকোনো তথ্য আমাদের Facebook, YouTube এবং Forum থেকে জানুন।
গুরুত্বপূর্ণ সব আপডেট পেতে সাবস্ক্রাইব করুন।

 

- নির্ভরযোগ্য এবং বিশ্বস্ত ব্রোকার 
Instaforex Broker Exness Broker IQ Option Broker WesternFX Broker FBS Broker
Skrill Neteller ETORO Broker ICMarkets Broker Hotforex Broker

কমেন্ট/প্রশ্ন করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here